Fun Factor লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান
Fun Factor লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান

রবিবার, ২ আগস্ট, ২০২০

টলিউড বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাইমা সেন এর অন্তর্বাস পরা ছবি - রাইমা সেন এর বোল্ড ছবি

টলিউড (Tollywood) ও বলিউড (Bollywood) এর অন‍্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাইমা সেন (Raima Sen) সম্প্রতি তার বোল্ড লুক ছবি পোস্ট করলেন তার ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইল পেজ-এ।

রাইমা সেন যার দিদিমা হলেন মহানায়িকা সুচিত্রা সেন যিনি বাংলা সিনেমার অন্যতম শ্রেষ্ট এবং কালজয়ী একজন অভিনেত্রী এবং মা হলেন স্বনামধন্য অভিনেত্রী মুনমুন সেন।

হিন্দি, বাংলা ছাড়া দক্ষিণেও পৌঁছে গিয়েছে রাইমার ম‍্যাজিক। গত বছরে একটি তামিল ছবিতে অভিনয়  করেছেন রাইমা সেন।  বাংলায় তাঁর সর্বশেষ ছবি ‘দ্বিতীয় পুরুষ', সৃজিত মুখার্জির পরিচালনায়, যেটি সুপারহিট বাংলা সিনেমা ২২ শে  শ্রাবন এর  সিক্যুয়াল।


রাইমা সেন এর ইন্সতাগ্রাম ফীড

জ্বলন্ত সিগারেট ঠোঁটে নিয়ে শুয়ে আছেন রাইমা


ইন্সতাগ্রাম এ নিজের বোল্ড ছবি পোস্ট করলেন রাইমা সেন

 

 দেখে নিন রাইমা সেন এর ইন্সতাগ্রাম ফটোশুট এর ভাইরাল ভিডিও


৩৪ হাজারের বেশি লাইক পড়েছে এই ছবিতে। পোস্ট করা মাত্রই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে রাইমার এই ছবিগুলি।

লং বব কাট চুল, ডিপ নেক পোশাকের উপর দিয়ে উঁকি দিচ্ছে রাইমার বক্ষ বিভাজিকা


অন্তর্বাস পরিহিত রাইমা সেন


অন্তর্বাস পরিহিত রাইমা সেনের বোল্ড ছবি


অন্তর্বাস পরিহিত রাইমা সেনের বোল্ড ছবি


অন্তর্বাস পরিহিত রাইমা সেনের বোল্ড ছবি


সিগারেট হাতে চিত্রনায়িকা


অন্তর্বাস পরিহিত রাইমা সেনের বোল্ড ছবি


উকি দিচ্ছে উম্মুক্ত বক্ষ বিভাজিকা

[full_width]
 

শনিবার, ১ আগস্ট, ২০২০

দেশের একটি রাস্তার নাম ‘শ্রীনগর হাইওয়ে”রাখল পাকিস্তান - Pakistan Renaming Islamabad's Kashmir highway to Srinagar highway

পাকিস্তান (Pakistan) কাশ্মীরকে (Kashmir) নিয়ে কতটা পাগল তারই নমুনা বোঝালো তাঁরা, সেইকারণেই দেশের একটি জাতীয় সড়কের নাম শ্রীনগরের নামে রাখতে চলেছে পাকিস্তান। কাশ্মীর না পাওয়ার দুঃখ কিছুতা লাঘব করার উদেস্যেই হয়তো এই কাজ করেছে তারা। শুধু তাইই নয়  ৫ই আগস্ট জম্মু আর কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার বছরপূর্তির  বিরধিতায় সারা দেশ জুরে পাঁচ আগস্ট দেশে কালা দিবস পালিত হবে।


আর এর বিরোধিতায় পাকিস্তানি সেনা এবং পাকিস্তানের গোয়েন্দা বিভাগ ISI কয়েক পাতার একটি কার্যক্রমও জারি করেছে।

আপরদিকে, পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি (Shah Mahmood Qureshi), ইসলামাবাদের (Islamabad) কাশ্মীর হাইওয়ের (Kashmir Highway) নাম বদলে শ্রীনগর হাইওয়ে (Srinagar Highway) রাখার ঘোষণা করেছেন। জানিয়ে রাখি, পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের প্রধান রাস্তা গুলির মধ্যে কাশ্মীর হাইওয়ে হল একটি, এই রাস্তাটি ইসলামাবাদের পশ্চিমে Pakistan International Airport কে পূর্বের E-75 হাইওয়ের সাথে যোগ করে, এই হাইওয়েটি ২৫ কিমি দীর্ঘ।

 এই বিষয়ে ইস্লামাবাদের এক সাংবাদিক Naila Inayat বলেন যে - "আমার গন্তব্য শ্রীনগর আর এই হাইওয়ে একদিন আমাকে শ্রীনগর পর্যন্ত নিয়ে যাবে।"
 After renaming Islamabad's Kashmir highway to Srinagar highway on Aug 5, Kashmir ban jaeyga Pakistan. - Naila Inayat said at twitter
 News Source - Bangla Hant News

শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০

শিলিগুড়িতে বাড়ির চাল থেকে উদ্ধার মৃত মানুষের মাথার খুলি ও দেহের হার


শিলিগুড়িতে বাড়ির চাল থেকে উদ্ধার মৃত মানুষের মাথার খুলি ও দেহের হার

বাড়ির ভিতর থেকে উদ্ধার করা হল মাথার খুলি আর মানুষের হাড়। এই ঘটনার ফলে  ব্যাপক চাঙ্চল্য ডিঙিয়েছে শিলিগুড়ির সুভাষ পল্লি অঞ্চলে বাড়ির চালের থেকে উদ্ধার করা  হয়েছে ২টো মাথার খুলি। আর বাড়ির ভিতরে থেকে উদ্ধার হয়েছে মানুষের হাড়গোড়। কোথা থেকে এল এই সমস্ত মানুষের মাথার খুলি, হাড়গোড়? এই নিয়ে দানা বেঁধেছে  রহস্য, এ ঘটনাকে একদিকে যেমন তুলনা করা হচ্ছে ২০১৫ সালে কলকাতার রবিনসন স্ট্রিটের পার্থ দে-র ঘটনার কথা, তেমন অপরদিকে ভাবা হচ্ছে তন্ত্র সাধনার প্রসঙ্গ ও।

খবরের প্রকাশ শিলিগুড়ির সুভাষ পল্লির ওই বাড়ির বাসিন্দা ছিলেন খোকা চক্রবর্তী ও তাঁর স্ত্রী, বছর ১৫ আগে তাঁদের মৃত্যু হয়। ওই একই বাড়িতে  আগে বাবা, মায়ের সঙ্গে থাকতেন তাঁদের ভাগনে ভিক্টর চক্রবর্তী, ভিক্টর পেশায় বে সরকারি নিরাপত্তা রক্ষী ছিলেন, এলাকাবাসীর বক্তব্য, বেশ কিছুদিন আগে ভিক্টরের বাবা-মায়েদের মৃত্যু হয়। বাবা-মায়ের মৃত্যুর পর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ভিক্টর, এর পরই এদিন বাড়ির ভিতর থেকে উদ্ধার হল মৃত মানুষের খুলি, হাড়গোড়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার বাড়ির ভিতর থেকে খুব দুর্গন্ধ বেরতে শুরু করে। তখনই খবর দেওয়া হয় এলাকার প্রাক্তন কাউন্সিলর নিখিল সাহানিকে। এর পরই আজ বাড়ি পরিষ্কার করতে আসেন কর্পোরেশনের সাফাই কর্মীরা। তাঁরাই বাড়ির চালের উপর মানুষের মাথার খুলি ও ভিতর থেকে হাড়গোড় উদ্ধার করেন। এ প্রসঙ্গে নিখিল সাহানি জানিয়েছেন, "মঙ্গলবার এলাকা বাসী জানায়, এলাকা থেকে খুব দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। আজ আমি তাই লোক পাঠাই পরিষ্কার করার জন্য। তাঁরাই আমাকে খবর দিয়ে গোটা ঘটনা জানান। পুলিস তদন্ত করছে গোটা ঘটনার।"

এই ঘটনায় তুমুল চাঙ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। কোথা থেকে কীভাবে বাড়ির ভিতর এই খুলি, হাড়গোড় এল? উঠছে প্রশ্ন। মামা-মামী র মৃত্যু হয়েছে বহু বছর আগেই। বাবা, মায়ের মৃত্যু পরেও শ্মশানে দেহ দাহ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় রা। তবে? দানা বেঁধেছে রহস্য। পুলিস সূত্রে খবর, প্রাথমিক তদন্তের পর তদন্তকারী অফিসার রা মনে করছেন ভিক্টর সম্ভবত তন্ত্র সাধনা করতেন। কিন্তু তাহলেও প্রশ্ন উঠছে এই দেহাংশ কার?

এদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক ভিক্টর চক্রবর্তী। উদ্ধার হওয়া খুলি, হাড়গোড় নিয়ে গিয়েছে পুলিস। শুরু হয়েছে পলাতক ভিক্টর চক্রবর্তী র খোঁজ। এলাকাবাসীর বক্তব্য, মা-বাবার মৃত্যুর পর থেকে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে ভিক্টর। বাড়িতে সেভাবে কেউ আসা যাওয়া করেন না। ইদানীং পাড়ার লোকদের নজরে খুব একটা আসেননি।

মা হতে চলেছেন শুভশ্রী সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করলেন সেই ছবি

মা হতে চলেছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। আর মাত্র দুমাস পর মা হতে চলেছেন শুভশ্রী নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়াতে সেই ছবি শেয়ার করলেন রাজ আর শুভশ্রী।
নিজের ইজের ইন্সটাগ্রাম প্রফাইল এ শেয়ার করলেন শুভশ্রীর বেবি বাম্প এর ছবি শেয়ার করে চিত্র-দম্পতি জানালেন মা হতে চলেছেন নায়িকা শুভশ্রী।
 

মা হতে চলেছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। টলি কাপল রাজ-শুভশ্রীর  ঘর আলো করে আসছে নতুন আতিথি। কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সুখবর জানিয়েছিলেন টলিপাড়ার পাওয়ার কাপল। এবার তুলে ধরলেন শুভশ্রীর বেবি বাম্পের ছবি। ইনস্টাগ্রামে নিজের আদরের শুভর সঙ্গে সেই ছবি শেয়ার করলেন রাজ।
খবরটা শুভশ্রীর ফ্যানেদের কানে পৌঁছনোর জন্য ফোটো তুললছিলেন রাজ-শুভশ্রী। তবে তাঁদের এই বিশেষ বার্তা 'ইউ আর প্রেগন্যান্ট' কথাটি নজর কেড়েছে আনেক ফ্যানের।


ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের বাংলা মাধ্যমে বলা হয়, সোমবার রাজ-শুভশ্রীর বিয়ের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিনে নিজের ইনস্ট্রাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শুভশ্রীর বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করেন রাজ।

ছবিতে লক্ষ্য করা যায়, দক্ষিণ ভারতীয় সাবেকি শাড়িতে সাবেকী সাজে রয়েছেন শুভশ্রী, পাশে দাঁড়িয়ে রয়েছেন রাজ। ছবিটির ক্যাপশনে রাজ লিখেছেন, ‘তোমার বাইরের ও অন্তরের সৌন্দর্য আমায় বারবার অভিভূত করে। মনে হয় ক্লাউড নাইনে আছি।’


আর মাত্র দুমাস পর মা হতে ছলেছেন শুভশ্রী গাঙ্গুলি, সোমবার (১১ মে) শুভশ্রী তার টুইটার প্রফাইলে লিখেছেন, ‘আমাদের দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকীতে আমরা আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি যে, হাত ধরার মতো আমরা আরও একজোড়া হাত পেতে চলেছি এবং ভালোবাসার জন্য আরও একটি হৃদয়। আমি সন্তানসম্ভবা!’


স্বামী ও চিত্রপরিচালক রাজ চক্রবর্তীর সাথে একটি ছবি শেয়ার করেছেন শুভশ্রী। সেই ছবিতেও ঘোষণা রয়েছে তাদের কোল আলো করে নতুন ছোট্টো অতিথি আগমনের।
ছবিতে রাজের পরনের টি-শার্টে লেখা ‘ড্যাড টু বি’, আর শুভশ্রীর পরনের টি-শার্টে লেখা ‘দিস গার্ল ইজ গোয়িং টু বি অ্যা মাম্মি’। সহজেই বোঝা যাচ্ছে, নিজেদের এই সুখবরে দারুণ উচ্ছ্বসিত এই তারকা জুটি।


বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই, ২০২০

জেনে নিন কোরান এর পাঁচটি বিস্ময়কর তথ্য - এই পৃথিবী তথা মহাবিশ্ব নিয়ে

জেনে নিন কোরান এর পাঁচটি বিস্ময়কর তথ্য - এই পৃথিবী তথা মহাবিশ্ব নিয়ে

 
পবিত্র কোরান হল সত্যিই একগুচ্ছ বিস্ময়ের ভাণ্ডার। অক্ষর থেকে শব্দ, শব্দ থেকে বাক্য জাণা-অজানা সব জ্ঞান-বিজ্ঞানের উন্মুক্ত বিশ্বকোষ। তেমনি আমরা যে গ্রহে বসবাস করি, অর্থাৎ পৃথিবী এ সম্পর্কেও কোরআনে রয়েছে বৃহৎ তথ্যভাণ্ডার। মহান আল্লা বলেন, বিশ্বাসীদের জন্য এই পৃথিবীতে অসংখ্য নিদর্শনাবলি রয়েছে। (সুরা : জারিয়াত, আয়াত : ২৩)

5 MISTIOUS FACT FROM KORAN SARIF
মহান আল্লাহ তার সৃষ্টিতত্ত্ব বিশ্লেষণ নিঃসন্দেহে একটি বড় ইবাদত। পবিত্র কোরআনে তার মানুষকে নিজের সৃষ্টি ও আশপাশের সৃষ্টিজগতের প্রতি অনুসন্ধিৎসু  দৃষ্টিদানের নির্দেশ দেয়া হঈয়াছে। আর পবিত্র কোরআন সেই কারণে অদ্বিতীয় নির্ভরযোগ্য উৎস। চলুন দেখি মহাগ্রন্থ কোরান এ পৃথিবী ও মহাকাশবিষয়ক কী কী বিস্ময়কর তথ্য রয়েছে।
তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য পাঁচটি বিস্ময়কর তথ্য এখানে উল্লেখ করা হলো—

বিস্ময়কর তথ্য ১ - পৃথিবীর সূচনা মহাবিস্ফোরণের মাধ্যমে

খুব বেশি দিন আগের কথা নয় যে মানুষ জানতে পেরেছে মহাবিশ্বের সূচনা এক মহাবিস্ফোরণের মাধ্যমেই ঘটেছে।  আজ থেকে প্রায় এক হাজার ৫০০ বছর আগে বিশ্বস্রষ্টা তাঁর মহাগ্রন্থ আল-কোরানে এই ব্যাপারে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন। ‘অবিশ্বাসীরা কি দেখে না যে সপ্তাকাশ ও পৃথিবী পুঞ্জীভূত হয়ে ছিল। অতঃপর আমি উভয়টি এক মহাবিস্ফোরণের মাধ্যমে সূচনা করেছি।’ (সুরা : আম্বিয়া, আয়াত : ৩০)

বিস্ময়কর তথ্য ২ - মহাকাশ সৃষ্টির আগে পৃথিবীর সৃষ্টি

মহাকাশ নাকি পৃথিবী? আকাশের গ্রহ-নক্ষত্র নাকি পৃথিবীর গাছপালা কোনটি আগে সৃষ্টি হয়েছে? উত্তর খুঁজতে হলে বেশি দূর যেতে হবে না। আপনার ঘরের পবিত্র কোরান টীকে হাতে নিন। তাতে চোখ বুলালেই দেখতে পাবেন, ‘আপনি বলুন, সত্যিই কি তোমরা সেই মহাপ্রভুকে অস্বীকার করছ! যিনি পৃথিবীকে মাত্র দুদিনে সৃষ্টি করেছেন এবং তার অংশীদার নির্ধারণ করছেণ ? তিনি তো সমস্ত জগতের প্রতিপালক। যিনি পৃথিবীতে তার উপরের স্থানে পাহাড় স্থাপন করেছেন এবং মাটীর ভিতরাংশ বরকতপূর্ণ করেছেন আর ভূগর্ভে জোঠেষ্ট খাদ্যদ্রব্য মজুদ করেছেন মাত্র চার দিনে। সবার জন্য সমানভাবে। সুতরাং তিনি আকাশের দিকে মনোনিবেশ করলেন আর তা ছিল ধোঁয়াশাচ্ছন্ন। (সুরা : ফুসিসলাত, আয়াত : ৯-১১) এখানে পর্যায়ক্রমে প্রথমে পৃথিবী সৃষ্টি এরপর ভূগর্ভস্থ বিষয় সমূহের আলোচনার পর আসমানের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

বিস্ময়কর তথ্য ৩ - ক্রমে সংকীর্ণ হয়ে আসছে পৃথিবীর পরিধি

পদার্থবিজ্ঞানীদের গবেষণামতে পৃথিবী তার জোণ্মলগ্ন থেকে এ পর্যন্ত মাটীর তলার জলের এক-চতুর্থাংশ জল হারিয়েছে। বিজ্ঞানীদের ধারণামতে পৃথিবীর ভার বা ওজন (৫,৯৭২,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০) অর্থাৎ ৫ সেক্সটিলিয়ন ৯৭২ কুইন্টিলিয়ন। গবেষণায় এটাই প্রমাণিত হয়েছে যে প্রতিবছর পৃথিবী তার মোট ওজন থেকে ৫০০ টন ওজন হারাচ্ছে। এ ছাড়া অক্সিজেনের ভাগ প্রতিনিয়ত কমে আসাও হালের বিজ্ঞানীদের কাছে চীণতার বিষয়। যা থেকে তারা নিশ্চিত হয়েছে যে পৃথিবীর পরিধি ক্রমেই সংকুচিত হয়ে আসছে। অন্যদিকে মহান আল্লা বলেন, ‘তারা কি দেখে না আমি ভূপৃষ্ঠের পরিধি ক্রমেই সংকুচিত করে আনছি, এর পরও কি তারাই বিজয়ী!’ (সুরা : আম্বিয়া, আয়াত : ৪৪)

বিস্ময়কর তথ্য ৪ -পৃথিবী দ্রুতগতিতে ছুটে চলেছে

পবিত্র কোরানে পৃথিবী স্থির কিংবা সূর্যের পাশে ঘূর্ণমান কোনোটিই বলা হয়নি। বরং এ বিষয়ে পবিত্র কোরানে যা এসেছে তার সারকথা হলো, পৃথিবী আপন কক্ষপথে দ্রুতগতিতে সাঁতার কাটার মতো ঢেউ খেলে ছুটে চলেছে। বিজ্ঞানীদের মতে, পৃথিবীর চলন প্রকৃতি প্রধানত দুই ধরনের। প্রথমত, পৃথিবীর নিজস্ব ঘূর্ণায়ন যা ঘণ্টায় প্রায় এক হাজার ৬০০ কিলোমিটার। পবিত্র কোরআনে মহান আল্লা বলেন, ‘মহান আল্লাহ যিনি আসমান জমিন যথাযথভাবে সৃষ্টি করেছেন এবং দিনকে রাতের ওপর এবং রাতকে দিনের ওপর আচ্ছাদিত করেন।’ (সুরা : জুমার, আয়াত : ৫) আর এ কথা শিরোধার্য, কোনো বৃত্ত আকৃতির জিনিসকে অনুরূপ অন্য কোনো জিনিস দ্বারা বারবার আচ্ছাদিত করার জন্য, তা ঘূর্ণমান হওয়ার বিকল্প নেই। দ্বিতীয়ত, সূর্যকে ঘিরে পৃথিবীর সন্তরণ। বহুকাল যাবৎ মানুষ এ ধারণা পোষণ করে আসছে যে পৃথিবী সূর্যের পাশে ঘূর্ণমান। তবে খুব সাম্প্রতিক সময়ে মহাকাশ গবেষকরা নিশ্চিত করেছেন যে সূর্যকে ঘিরে পৃথিবীর চলার ধরনটাকে ঘূর্ণন শব্দে ব্যাখ্যা করা যথাযথ নয়। বরং পৃথিবীসহ আরো অনেক গ্রহ উপগ্রহ সর্বদা সূর্যকে ঘিরে সাঁতার কাটার মতো ওপর-নিচ ঢেউ তুলে সম্মুখপানে অগ্রসর হচ্ছে। মহান আল্লা পবিত্র কোরানে চাঁদ, সূর্য ও পৃথিবীর আলোচনা টেনে বলেন, প্রত্যেকেই আপন কক্ষপথে সন্তরণ করছে। (সুরা : ইয়াসিন, আয়াত : ৪০)

বিস্ময়কর তথ্য ৫- পৃথিবীর নিচে বিপুল পানির উৎস

টিউবওয়েল থেকে জল তুলছেন কিংবা পাম্পের সাহায্যে। কিন্তু কখনো কি ভেবেছেন মাটীর নিচের এই বিপুল পরিমাণ জলের উৎস কোথায়? তাহলে জেনে নিন, মহান আল্লা  বলেন, ‘আমি আসমান থেকে পরিমাণমতো পানি বর্ষণ করি, এরপর তা ভূগর্ভে সংরক্ষণ করে রাখি।’ (সুরা : মুমিনুন, আয়াত : ১৮)

সংগৃহীত : মুফতি সাআদ আহমাদ এর লেখা থেকে, শিক্ষক, ইমদাদুল উলুম রশিদিয়া মাদরাসা, ফুলবাড়ী গেট, খুলনা।

কীভাবে সরষে ইলিস রান্না করবেন - সরষে ইলিশ রান্নার রেসিপি

সরষে ইলিশ রান্নার পদ্ধতি- বন্ধুরা ইলিশ মাছ খেতে কোন বাঙালি না ভালো বাসে বলুন ? আর তাই যদি হয় সরষে দিয়ে ইলিশ তাহলে তো যে কোনও বাঙ্গালির জিভে ...