সুশান্ত সিং রাজপুত লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান
সুশান্ত সিং রাজপুত লেবেলটি সহ পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে৷ সকল পোস্ট দেখান

শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০

'সুশান্ত অবসাদগ্রস্ত ছিল না'' সুশান্ত কে নিয়ে প্রথম বার মুখ খুললেন অঙ্কিতা লোখান্ডে

বিকাশ বাংলা সংবাদ: সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্য জনক মৃত্যু নিয়ে এবার মুখ খুললেন তাঁর প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখান্ডে। সম্প্রতি রিপাবলিক টিভির লাইভ অনুষ্ঠানে প্রথমবার সুশান্ত কে নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু বলেন তার প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা। তিনি স্পষ্ট বলেন সুশান্ত কখনওই মানসিক ভাবে অবসাদগ্রস্ত ছিলেন না।
সুশান্ত সিং রাজপুত

অঙ্কিতাকে প্রকাশ্যেই বলতে শোনা যায়-
''সুশান্তকে যেভাবে বারবার মানসিক অবসাদগ্রস্ত বলা হচ্ছে, সেটা সবথেকে বড় ভুল শব্দ। কোনওভাবেই এটা সত্যি হতে পারে না। কোনও ঘটনায় সুশান্তের সাময়িক মন খারাপ হতে পারে, তাকে মানসিক অবসাদ বলা যায় না। মানসিক অবসাদ শব্দটা অনেক বড় শব্দ। কোনও কারণ ছাড়াই কীভাবে কেউ কাউকে মানসিক অবসাদগ্রস্ত বলতে পারেন?''
বেশকিছুটা উত্তেজনার বশবর্তী হয়েই অঙ্কিতাকে এই জাতীয়  মন্তব্য করতে শোনা গেল-
সুশান্ত আঙ্কিতা লোখান্ডে
রিপাবলিক টিভির প্রতিবেদন অনুসারে অঙ্কিতা লোখান্ডে বলেন-
''যখন আমি প্রথম শুনলাম ও আত্মহত্য করেছে, বিষয়টা আমি মানতে পারিনি। এটা বিশ্বাস করতে আমার বেশ কিছুটা সময় লেগেছে। সুশান্ত সেইধরনের ছেলেই ছিল না, যে কোনও কিছুতে মন খারাপ করে এত বড় পদক্ষেপ নেবে। আমরা যখন একসঙ্গে থাকতাম, তখন আরও অনেক কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি আমরা। সুশান্তের ঘরের বিভিন্ন ভিডিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছিল। অনেকেই বলছেন এটা আত্মহত্যা বললেও আমি বিশ্বাস করিনি। সুশান্ত ডায়েরি লিখতে ভালো বাসতো, আমরা যখন সম্পর্কে ছিলাম, তখন ও লিখেছিল আগামী ৫ বছর পর ও নিজেকে কোথায় দেখতে চায়। আর ও সেই জায়গায় নিজেকে পৌঁছে নিয়ে গিয়েছিলো অনেকেই ওকে দিমেরুর মানুষ বলছেন। আমি জোর গলায় বলতে পারি, ও মানসিক অবসাদগ্রস্ত ছিল না, সকলেই মনে করছেন, তাঁরা সুশান্তকে জানেন, এটাই কষ্ট দিচ্ছে, ও খুবই আবেগপ্রবণ ছিল, একেবারে ছোটো শিশুদের মতো, ও বলত ও চাষাবাদ করবে, আর কিছুই না হলে শর্টফিল্ম করবে, মানসিকভাবে ভেঙে পড়ার  মতো ছেলে ও কখনওই ছিল না।"

কীভাবে সরষে ইলিস রান্না করবেন - সরষে ইলিশ রান্নার রেসিপি

সরষে ইলিশ রান্নার পদ্ধতি- বন্ধুরা ইলিশ মাছ খেতে কোন বাঙালি না ভালো বাসে বলুন ? আর তাই যদি হয় সরষে দিয়ে ইলিশ তাহলে তো যে কোনও বাঙ্গালির জিভে ...